7 December 2022

NEWSCOPE

"Open to all, but Influenced by None"

যৌন পেশাকে স্বীকৃতি দিলো সুপ্রিম কোর্ট

সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের পর দেশের বিভিন্ন যৌন পল্লীগুলিতে উৎসব শুরু হয়ে যায়।


জিনিয়া মন্ডল : যৌন কর্মীদের পেশাকে আইনত স্বীকৃতি দিলো সুপ্রিম কোর্ট। গত ২৭মে এই রায় দিয়েছেন সর্বোচ্চ আদালত। আদালতের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে “এই পেশা বেআইনি নয়, বাকি সব পেশার মতন এটিও তাই স্বীকৃতির যোগ্য”। সুপ্রিম কোর্টের এই রায়ের পর দেশের বিভিন্ন যৌন পল্লীগুলিতে উৎসব শুরু হয়ে যায়। যৌনকর্মীরা আবির খেলা ও মিষ্টি মুখ করিয়ে আনন্দে মেতে ওঠেন।
২০০৬ সালে রাজ্যের বিভিন্ন জায়গার যৌন কর্মীরা সংঘবদ্ধ হয়ে একটি বিশেষ ট্রেনে দিল্লীর পার্লামেন্টে যান এবং সেখানে তারা তাদের পেশাকে সাংবিধানিক অধিকারের আওতায় আনার আর্জি জানান। দীর্ঘ লড়াইয়ের পর অবশেষে যৌন পেশাকে সাংবিধানিক স্বীকৃতি দিল শীর্ষ আদালত। এই যুদ্ধজয়ের স্বভাবতই খুশি যৌনকর্মীরা।
এই রায়ের প্রতিক্রিয়ায় এক যৌনকর্মীর বক্তব্য, ‘যারা এই পেশার সাথে যুক্ত আছেন, তারা যেনো সুস্থ ভাবে বাঁচতে পারেন। তাদেরও সম্মানের সাথে বাঁচার অধিকার আছে’। তাদের অভিযোগ, ‘যৌনকর্মীরা তাদের সন্তানকে নিজের কাছে রাখতে পারেনা। তারপর পুলিশের অত্যাচার তো আছেই। তাদের কাছে যে গ্রাহকরা যান, যখন তখন তাদের তুলে নিয়ে যাওয়া হয় এবং বিভিন্ন কেসে ফাঁসিয়ে দেওয়া হয়’।
অন্যদিকে, এই রায় নিয়ে দুর্বার মহিলা সমিতির উপদেষ্টা ল্যারি বোস বলেন, “যৌনকর্মীরা বহুদিন ধরে স্বীকৃতি পাওয়ার জন্য লড়াই করছেন, এই নিয়ে বহুদিন ধরে মামলা চলছিল। শেষ পর্যন্ত সুপ্রিম কোর্টের বিশেষ পর্যবেক্ষণে যৌনকর্মীদের আবেদন সামনে আসে। আর তার ফলে এই রায় দেওয়া হয়, এবার আর যৌনকর্মীদের হয়রানির স্বীকার হতে হবে না”। আরও এক সমাজ কর্মী নির্মাল্য মুখোপাধ্যায়ের বক্তব্য, “যৌন কর্মীদের নিয়ে এই রায় এক ঐতিহাসিক রায়। ওরা এবার সুস্থ ভাবে জীবন যাপন করতে পারবেন, ওদের আর কোথাও থেকে অপমানিত হতে হবে না। সবথেকে বড় কথা পুলিশের অত্যাচার আর সহ্য করতে হবেনা”।

তবে এই পেশা আইনি স্বীকৃতি পেলেও, ওয়াকিবহাল মহলের একাংশের ধারণা, নাগরিক সমাজের একটি বড় অংশ এই রায়কে সাধুবাদ জানাতে পারছেন না। তাই বিশেষজ্ঞ মহলের মতে, যৌন পেশা বা যৌনকর্মীদের সামাজিক স্বীকৃতি পাওয়ার জন্য এখনও দীর্ঘ সময় অপেক্ষা করতে হবে।

Also read: রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে অকল্যাণের অভিযোগ, কড়া স্বাস্থ্য দফতর https://newscope.in/?p=8891

>
%d bloggers like this: