7 December 2022

NEWSCOPE

"Open to all, but Influenced by None"

শিকেয় করোনা বিধি, গঙ্গায় মহালয়ার তর্পণ

শিকেয় করোনা বিধি, গঙ্গায় মহালয়ার তর্পণ

লুসী ঘোষাল : আজ মহালয়া। পিতৃপক্ষের অবসান ঘটিয়ে আগামীকাল থেকে শুরু হচ্ছে দেবীপক্ষ।  পুরাণ অনুসারে মহালয়ার দিন অমাবস্যায় পিতৃপুরুষের উদ্দেশ্যে জল দান করার রীতি প্রচলিত রয়েছে। কথিত আছে পিতৃপুরুষরা মহালয়ার দিন তাঁদের উত্তরসূরীদের হাত থেকে জল লাভের আশায় প্রেতলোক থেকে নেমে আসেন মর্ত্যে এবং জল গ্রহণ করে আশীর্বাদ করেন। সেই রীতি মেনেই মহালয়ার পুণ্যলগ্নে ভোরবেলা থেকেই পিতৃপুরুষের উদ্দেশ্যে গঙ্গায় শুরু হয়েছে তর্পন। কাতারে কাতারে মানুষ তাঁদের পিতৃপুরুষদের জলদানের পুণ্যলাভের আশায় ভিড় জমিয়েছেন গঙ্গায়। বাবুঘাট থেকে বাগবাজার ঘাট সবজায়গাতেই পরিলক্ষিত হয়েছে উপচে পড়া ভিড়। অন্যদিকে দীঘা, বীরভূম, থেকে শুরু করে উলুবেড়িয়া, হুগলী, হাওড়া, দক্ষিণেশ্বর সব জায়গার চিত্রটা ঠিক একই রকম।

কোনোরকম অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে গঙ্গার ঘাটে রয়েছে কড়া নিরাপত্তা। কলকাতা পুলিশ থেকে শুরু করে রিভার ট্রাফিক পুলিশ, তৎপরতা রয়েছে সবার মধ্যেই। মহামারী আবহে যাতে সুষ্ঠভাবে তর্পন সম্পন্ন হয়, তারজন্য গঙ্গার ঘাটে প্রয়োজনীয় সতর্কতা অবলম্বন করে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা রেখেছে রাজ্যপ্রশাসন। তবে তর্পনের বিধি মানলেও মানা হচ্ছে না করোনা বিধি। সামাজিক দূরত্ব শিকেয় তুলে গঙ্গার ঘাটে নেমেছে মানুষের ঢল। নিদেনপক্ষে মাস্কটুকুও দেখা যাচ্ছে না কারও মুখে। সন্ধ্যের মুখেও বদলাল না সেই চিত্র। গঙ্গার ঘাটের পাশাপাশি মন্দিরেও দেখা গেল লক্ষ লক্ষ মানুষের ভিড়।

করোনার তৃতীয় ঢেউ রুখতে জমায়েত এড়াতে বারবার সতর্ক করছে রাজ্য প্রশাসন। কিন্তু সেই নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে রমরমিয়ে চলছে লক্ষাধিক মানুষের জমায়েত। পুজোর দিনগুলোতে যে সতর্কতা জারি করা করা হয়েছে প্রশাসনের তরফে, তার কতটা কার্যকরী হবে, এই মুহুর্তে সেটাই লক্ষণীয়। 

>
%d bloggers like this: